1. admin@dainikmanobadhikarsangbad.com : admin :
একসাথে ৪০ জন এতিম কন্যার বিবাহোত্তর সংবর্ধনা - দৈনিক মানবাধিকার সংবাদ
২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ| ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ| গ্রীষ্মকাল| সোমবার| সন্ধ্যা ৬:৪১|

একসাথে ৪০ জন এতিম কন্যার বিবাহোত্তর সংবর্ধনা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
  • Update Time : শনিবার, মে ২৮, ২০২২,
  • 657 Time View

বরদের বাড়ি রংপুর, খুলনা ও যশোরে; আর কনেদের বাড়ি দিনাজপুরে। কারও বিয়ের বয়স দুই বছর, কারওবা তিন। তাঁদের মধ্যে মা–বাবা হয়েছেন কেউ কেউ। তবে আজ তাঁদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা। অনুষ্ঠানে তাঁরা হাজির হয়েছেন নিজেদের সন্তান ও আত্মীয়স্বজনকে নিয়ে। সঙ্গে আছেন পাড়া-প্রতিবেশী আর স্থানীয় লোকজন।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে দিনাজপুর শহরের বালুবাড়ি এলাকার গ্রিনভিউ কমিউনিটি সেন্টারে ৪০ জন এতিম মেয়ের বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। দিনাজপুর লায়ন্স ক্লাব ও দিনাজপুর সমাজসেবা অধিদপ্তর এই অনুষ্ঠান করে। লায়ন্স ক্লাব পরিচালিত জেলা শিশুনিকেতনের (বালিকা এতিমখানা) ৪০ জন এতিম মেয়েকে বিভিন্ন সময়ে বিয়ে দেওয়া হয়। গতকাল তাঁদের জন্য এই বিবাহ–পরবর্তী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আলোকসজ্জা, বিয়ের মঞ্চ, ভিডিও, ব্যান্ড পার্টি কোনো কিছুরই কমতি ছিল না। সঙ্গে ছিল ১ হাজার ২০০ জন অতিথির দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা। অনুষ্ঠানে বর-কনেকে উপহার হিসেবে দেওয়া হয় সেলাই মেশিন, বাইসাইকেল, গৃহস্থালিসামগ্রী, টাকাসহ বিভিন্ন উপহারসামগ্রী।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে দম্পতিদের মধ্যে বিভিন্ন উপহারসামগ্রী তুলে দেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম। আরও উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা লায়ন এমএ মজিদ, জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী, দিনাজপুর সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক আবু বক্কর সিদ্দিক, শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মর্তুজা আল মুঈদ, শহর সমাজসেবা কর্মকর্তা মাইনুল ইসলাম, শিশুনিকেতনের সভাপতি মোজাফফর আলী, ক্লাবের প্রেসিডেন্ট সৈয়দ মিজানুর রহমান প্রমুখ।

ইকবালুর রহিম বলেন, ‘যাঁরা বরের বেশে আজ উপস্থিত হয়েছেন, তাঁরা যৌতুকবিহীন বিয়ে করে সমাজে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। যেটা আজকাল অনেকের পক্ষে সম্ভব হয় না। এই ৪০ যুবক সমাজের জন্য দারুণ একটি বার্তা দিয়ে গেছেন।’ এ সময় প্রত্যেককে শুভকামনা জানিয়ে তাঁদের শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুযায়ী কর্মসংস্থান সৃষ্টির আশ্বাস দেন তিনি।

হাকিমপুর উপজেলার বোয়ালদার গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক বলেন, তিনি যৌতুক ছাড়া বিয়ে করেছেন। স্ত্রী লিজা আক্তারের পাশে দাঁড়িয়েছেন, যেন লিজা কখনো নিজেকে একা না ভাবে। তিনি দরজির কাজ করেন। সব মিলিয়ে ভালো কাটছে তাঁদের দিন। আজকের এই আয়োজন তাঁদের সাহস জুগিয়েছে। সমাজের সম্মানিত ব্যক্তিরা এতিমদের আনন্দদানে এই আয়োজন করেছেন দেখে তাঁর ভালো লেগেছে।

দিনাজপুর শহরের ফুলবাড়ী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় লায়ন্স ক্লাবের পরিচালনায় শিশুনিকেতন প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৭৯ সালে। প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই লায়ন্স ক্লাব এতিম কন্যাশিশুদের আবাসন, পড়ালেখা ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করছে। দিনাজপুর শিশুনিকেতনের অধীনে বর্তমানে ১০১ জন মেয়ে লেখাপড়ার পাশাপাশি হস্তশিল্প ও বুটিকের কাজ, সেলাইয়ের কাজ ও কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। ২১৭ জনকে যৌতুকবিহীন বিয়ে দিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি। © প্রকাশক কতৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত -২০২২

You cannot copy content of this page